শুক্র ও শনিবার ব্যাংকের সিআইবি সেল খোলা থাকবে

আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ঋণখেলাপিদের প্রার্থী হওয়া ঠেকাতে আগামী শুক্র ও শনিবার ব্যাংকের সিআইবি সেল খোলা রাখার নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

বৃহস্পতিবার থেকে শনিবার পর্যন্ত প্রতিদিন সকাল ৯টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত খোলা রাখতে হবে। প্রয়োজনে এর চেয়েও বেশি সময় সিআইবি সেল খোলা রাখার ব্যবস্থা করতে বলা হয়েছে।

বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে বাণিজ্যিক ব্যাংকের প্রধান নির্বাহী বরাবর চিঠি দিয়ে এ-সংক্রান্ত নির্দেশনা দেওয়া হয়। নির্বাচন-সংক্রান্ত কাজে প্রয়োজনীয় সহযোগিতা দেওয়ার লক্ষ্যে চিঠিটি দেওয়া হয়। নির্দেশনার আলোকে ব্যাংকগুলো এরই মধ্যে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে শুরু করেছে। নির্দেশনার পাশাপাশি অনেক ব্যাংক সিআইবি সেলের কর্মকর্তাদের নম্বর বাংলাদেশ ব্যাংকে পাঠানো হয়েছে।

চিঠিতে বলা হয়েছে, কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ঋণ তথ্য ব্যুরো (সিআইবি) থেকে রিটার্নিং অফিসার বরাবর মনোনয়নপত্র দাখিলকারী প্রার্থীদের ঋণখেলাপি সংক্রান্ত তথ্য পাঠাতে হবে। তথ্যের সঠিকতা ও হালনাগাদ তথ্য যাচাইয়ের জন্য প্রয়োজনীয় সহযোগিতা করার লক্ষ্যে ২৯ নভেম্বর থেকে ১ ডিসেম্বর পর্যন্ত সকাল ৯টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত সব ব্যাংকের সিআইবি সেল খোলা রাখতে হবে।

এছাড়া প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিলের পরপরই ব্যাংকের শাখা ব্যবস্থাপক বা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তারা নিজ উদ্যোগে রিটার্নিং অফিসার থেকে প্রার্থীর তালিকা সংগ্রহ করে কেউ খেলাপি থাকলে সে তথ্য দিতে বলা হয়েছে। মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাইয়ের শেষ দিন আগামী ২ ডিসেম্বর ঋণখেলাপি-সংক্রান্ত তথ্যসহ শাখা ব্যবস্থাপকদের সংশ্নিষ্ট রিটার্নিং অফিসারের দপ্তরে বাধ্যতামূলকভাবে উপস্থিত থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন ২৮ নভেম্বর। রিটার্নিং অফিসার থেকে মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই করা হবে ২ ডিসেম্বর। এছাড়া প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিন আগামী ৯ ডিসেম্বর। গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশের বিধান অনুসারে ঋণখেলাপি কোনো ব্যক্তি জাতীয় সংসদের সদস্য হতে পারেন না। ফলে তারা প্রার্থীও হতে পারেন না। নির্বাচনে মনোনয়নপত্র দাখিলকারী ব্যক্তিদের ঋণখেলাপি-সংক্রান্ত তথ্য সব তফসিলি ব্যাংক থেকে সরবরাহ করার বাধ্যবাধকতা রয়েছে।

About editor

Leave a Reply

Your email address will not be published.

WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com