ব্রেকিং নিউজ

ডিআরইউ’র সভাপতি ইলিয়াস, সম্পাদক কবির

ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরইউ) নির্বাচনে সভাপতি পদে ৬৪১ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন এসএ টেলিভিশনের ইলিয়াস হোসেন। প্রতিদ্বন্দ্বী একাত্তর টেলিভিশনের মনির হোসেন লিটন পেয়েছেন ৪৯৬ ভোট।  

ভোট গণনা শেষে শুক্রবার (৩০ নভেম্বর) রাতে এই ফল ঘোষণা করা হয়। সকাল ৯টা থেকে ভোটগ্রহণ শুরু হয়। ভোটগ্রহণ শেষ হয় সন্ধ্যা ৬টায়।  

সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা বাসসের কবির আহমেদ খান। তার প্রাপ্ত ভোট ৪৫০। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী এশিয়ান মেইল ২৪ ডটকমের রিয়াজ চৌধুরী পেয়েছেন ৪৪০ ভোট। তৃতীয় প্রতিদ্বন্দ্বী দৈনিক মানবকণ্ঠের শেখ জামাল পেয়েছেন ২৪৫ ভোট।    

সহ-সভাপতি পদে খন্দকার কাওসার হোসেন ৪১৬ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। একই পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী ওসমান গণি বাবুল ৩৩২ ও আবুল বাশার নুরু ৩০৭ ভোট পেয়েছেন। সাধারণ সম্পাদক পদে বাসসের কবির আহমেদ খান ৪৫০ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী রিয়াজ চৌধুরী পেয়েছেন ৪৪০ ভোট। একই পদে আরেক প্রতিদ্বন্দ্বী শেখ জামাল পেয়েছেন ২৪৫ ভোট।   

যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক পদে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন জামিল আহসান শিপু। অর্থ সম্পাদক পদে জিয়াউল হক সবুজ ৮০৮ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। অন্য প্রার্থী শ্যামল কান্তি নাগ পেয়েছেন ২৬৪ ভোট।

সাংগঠনিক সম্পাদক পদে আফজাল বারী ৭১৫ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। একই পদে হাবীবুর রহমান পেয়েছেন ৪০১ ভোট।

নারী বিষয়ক সম্পাদক পদে ৬৪৪ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন সাজিদা ইসলাম পারুল। একই পদে সেলিনা শিউলি পেয়েছেন ৪৬০ ভোট।

দফতর সম্পাদক পদে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন জিহাদ চৌধুরী। প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক পদে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন শেখ মাহমুদ এ রিয়াদ। প্রশিক্ষণ ও গবেষণা সম্পাদক পদে ৫৬৬ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন আব্দুল হাই তুহিন। একই পদে সাখাওয়াত হোসেন পেয়েছেন ৪৭৬ ভোট। ক্রীড়া সম্পাদক পদে ৫৬৬ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন শফিকুল ইসলাম শামীম। একই পদে মাকসুদা লিসা পেয়েছেন ৫২৬ ভোট।

সাংস্কৃতিক সম্পাদক পদে ৫৫৪ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন এমদাদুল হক খান। একই পদে এস এম মুন্না মিয়া পেয়েছেন ৩৯৬ ভোট।

আপ্যায়ন সম্পাদক পদে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন এইচ এম আকতার। কল্যাণ সম্পাদক পদে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন কাওসার আজম।

কার্যনির্বাহী সদস্য পদে ৭০০ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন মহিউদ্দিন। অন্য সদস্যরা হলেন খালিদ সাইফুল্লাহ (৬৪৬), বাদল নূর (৫৮০), নঈমুদ্দিন (৫৬৪), মাকসুদুল হাসান (৫৬৪), রাসেদুল হক (৫৩০) ও শাহাবুদ্দিন মাহাতাব (৪৩২)।

এবারের নির্বাচনে ২১টি পদে লড়েছেন ৩৩ জন প্রার্থী। এবার মোট ভোটার ছিলেন ১৪৭৭ জন। ভোট পড়েছে ১১৪৮টি।   

ডিআরইউ নির্বাচনের জন্য গঠিত পাঁচ সদস্যের নির্বাচন কমিশনের চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করেন নিউজ টুডের সাবেক সম্পাদক রিয়াজ উদ্দিন আহমেদ। অন্য সদস্যরা হলেন বিএফইউজের সাবেক সভাপতি এম শাজাহান মিয়া, একুশে টেলিভিশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মনজুরুল আহসান বুলবুল, বাংলাদেশ প্রতিদিনের যুগ্ম সম্পাদক আবু তাহের ও সাংবাদিক নেতা এম এ আজিজ। 

About editor

২ comments

  1. Admiring the hard work you put into your site and detailed information you present. It’s great to come across a blog every once in a while that isn’t the same old rehashed information. Excellent read! I’ve bookmarked your site and I’m including your RSS feeds to my Google account.

  2. Hello my friend! I want to say that this article is amazing, nice written and come with almost all vital infos. I would like to look more posts like this.

Leave a Reply

Your email address will not be published.

WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com