তামিম-সৌম্যর জোড়া সেঞ্চুরিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হারালো বিসিবি একাদশ

ড্যাশিং ওপেনার তামিম ইকবাল ও সৌম্য সরকারের জোড়া সেঞ্চুরিতে প্রস্তুতি ম্যাচে সফরকারী ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হারালো বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) একাদশ। ওয়ানডে সিরিজের আগে একমাত্র প্রস্তুতি ম্যাচে বিসিবি একাদশ ডিএল মেথডে ৫১ রানের ব্যবধানে হারায় ক্যারিবীয়দের।
সাভারের বিকেএসপি’র তিন নম্বর মাঠে সকাল ৯টায় শুরু হওয়া ম্যাচে টস জিতে প্রথমে ব্যাটিং বেছে নেয় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ব্যাট হাতে উড়ন্ত সূচনা ছিলো ক্যারিবীয় দুই ওপেনার কাইরেন পাওয়েল ও শাই হোপ। ৯২ বলে ১০১ রানের সূচনা এনে দেন এ জুটি। দু’জনকে থামিয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজের রানের লাগাম টেনে ধরার চেষ্টা করেন বাংলাদেশের বাঁ-হাতি স্পিনার নাজমুল ইসলাম অপু। পাওয়েল ৪৯ বলে ৪৩ ও হোপ ৮৪ বলে ৬টি চার ও ৩টি ছক্কায় ৮১ রান করে ফিরেন।
দুই ওপেনারের পর মিডল-অর্ডারের ব্যাটসম্যানরা বড় ইনিংস খেলতে পারেননি। তবে সাত ও আট নম্বরে ব্যাট হাতে ঝড়ো দু’টি ইনিংস খেলেন যথাক্রমে রোস্টন চেজ ও ফাবিয়ান অ্যালেন। জুটিতে ৮১ রান যোগ করেন তারা। অ্যালেন ৩২ বলে ৪৮ রানে ফিরলেও রোস্টন চেজ ৫১ বলে ৬৫ রানে অপরাজিত থাকেন। বিসিবি একাদশের রুবেল হোসেন-মেহেদি হাসান রানা-নাজমুল ইসলাম ২টি করে এবং অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা-শামীম পাটওয়ারি ১টি করে উইকেট নেন।
জয়ের জন্য ৩৩২ রানের বড় লক্ষ্যে খেলতে নেমে দারুণ সূচনা করেন বিসিবি একাদশের দুই ওপেনার তামিম ও ইমরুল কায়েস। ৯ ওভারে ৮১ রান স্কোর বোর্ডে যোগ করেন তারা। এরমধ্যে ২৭ রান অবদান ছিলো ইমরুলের।
ইমরুলের বিদায়ে তিন নম্বরে ব্যাট হাতে নামেন সৌম্য। তামিমকে নিয়ে ঝড়ো গতিতে ব্যাট চালান তিনি। দ্বিতীয় উইকেটে মাত্র ৮৩ বলে ১১৪ রান যোগ করেন তামিম-সৌম্য। তামিমের বিদায়ে ভাঙ্গে এই জুটি। ১৩টি চার ও ৪টি ছক্কায় ৭৩ বলে ১০৭ রান করেন তামিম।
তামিমের বিদায় দলের জন্য ভালো কিছু বয়ে আনেনি। কারণ এরপর মিডল-অর্ডারে দ্রুতই চার ব্যাটসম্যানকে হারায় বিসিবি একাদশ। উইকেটরক্ষক মোহাম্মদ মিথুন ৫, তৌহিদ হৃদয় শুন্য, শামীম পাটওয়ারি ৯ ও আরিফুল হক ২১ রান করে ফিরেন।
৩৫ দশমিক ১ ওভারে দলীয় ২৬৫ রানে ৬ উইকেট হারানোর পর দলের জয় নিশ্চিতের দায়িত্ব নেন সৌম্য ও অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা। দলকে জয়ের পথেই নিয়ে যাচ্ছিলেন তারা। তবে ৪১তম ওভারের পর আলো স্বল্পতায় ম্যাচটি বন্ধ হয়ে যায়। পরবর্তীতে খেলা আর শুরু না হলে ডিএল মেথডে জয় পায় বিসিবি একাদশ।
এসময় সৌম্য ১০৩ রানে অপরাজিত ছিলেন। তার ৮৩ বলের ইনিংসে ৭টি চার ও ৬টি ছক্কা ছিলো। ১৮ বলে ২২ রানে অপরাজিত ছিলেন ম্যাশ। তার ১৮ বলের ছোট্ট ইনিংসে ২টি চার ও ১টি ছক্কা ছিলো। ওয়েস্ট ইন্ডিজের রোস্টন চেজ ও দেবেন্দ্র বিশু ২টি করে উইকেট নেন।
আগামী ৯ ডিসেম্বর মিরপুরে অনুষ্ঠিত হবে বাংলাদেশ-ওয়েস্ট ইন্ডিজের মধ্যকার তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম ওয়ানডে।

About editor

Leave a Reply

Your email address will not be published.

WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com