ব্রেকিং নিউজ

বঙ্গবন্ধুর ‘সোনার বাংলা’ বিনির্মাণে ষড়যন্ত্রকারীদের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তোলার আহ্বান তথ্যমন্ত্রীর

তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের ‘সোনার বাংলা’ বিনির্মাণের লক্ষ্যে বাংলাদেশের বর্তমান উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে ষড়যন্ত্রকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর প্রতিরোধ গড়ে তোলার জন্য দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। নতিনি আজ জাতীয় প্রেসক্লাব মিলনায়তনে বঙ্গবন্ধুর ৯৯তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়নে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গতিশীল নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ উন্নয়নের মহাসড়কে।’অতএব যারা দেশের চলমান উন্নয়ন ব্যাহত করতে চায় আসুন তাদের বিরুদ্ধে কঠোর প্রতিরোধ গড়ে তুলি।
বঙ্গবন্ধুর জন্মবার্ষিকী এবং একই সঙ্গে জাতীয় শিশু দিবস পালন উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট এ আলোচনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সারাহ বেগম কবরী।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থার (বাসস) ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ। প্রধান বক্তা ছিলেন আওয়ামী লীগ মহানগর দক্ষিণের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ।
ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক হাছান মাহমুদ বলেন, জাতির জীবন থেকে বঙ্গবন্ধুর নাম-নিশান মুছে ফেলার হীন প্রচেষ্টা মানুষ এরআগে প্রত্যক্ষ করেছে। অতীতে জিয়াউর রহমান এমনকি বেগম জিয়ার সরকারও বঙ্গবন্ধুর নাম ও তাঁর মহৎ কাজগুলো জনগণের মন থেকে মুছে ফেলার চেষ্টা করে। কিন্তু তাদের সে প্রচেষ্টা ব্যর্থ হয়েছে। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু এ দেশের মানুষকে স্বাধীন ও সার্বভৌম দেশ হিসেবে উপহার দিয়েছেন। আর বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার গতিশীল ও দূরদর্শী নেতৃত্বে দেশ এখন উন্নয়নের পথে এগিয়ে যাচ্ছে। যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট, জাতিসংঘ মহাসচিব, ভারতের প্রধানমন্ত্রী ও বিশিষ্ট অর্থনীতিকসহ অনেক বিশ্ব নেতৃত্ব বাংলাদেশের দ্রুত উন্নয়নের প্রশংসা করেছেন। কিন্তু কতিপয় লোক এখনো এই উন্নয়নের স্বীকৃতি দিতে চায় না- তারা বরং দেশবাসীকে বিভ্রান্ত করার কাজে ব্যস্ত রয়েছে। বিশেষভাবে বিএনপি নেতা রিজভী আহমেদের নির্বাচন কমিশন সম্পর্কে সাম্প্রতিক বিভ্রান্তিকর বক্তব্য প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, এই দলটি সব সময় নির্বাচন কমিশন ও নির্বাচন নিয়ে ধোঁয়াশা সৃষ্টির অপচেষ্টা করছে। তিনি বিএনপিকে এ ধরনের বিতর্ক পরিহার করে সংসদে যোগ দিয়ে গঠনমূলক সমালোচনা চর্চার আহ্বান জানান।
তিনি বলেন, ‘দয়া করে সংসদে আসুন। আমরা শক্তিশালী গণতন্ত্রের জন্য সরকারের গঠনমূলক সমালোচনা চাই।’ তিনি আশংকা করেন যে, এই নির্বাচন ফোবিয়া (বিরাগ) অদূর ভবিষ্যতে বিএনপিকে রাজনীতি বিচ্ছিন্ন করে দিতে পারে এবং বর্তমানে তারা অস্তিত্ব সংকটের মুখে পড়েছেন।
তিনি নির্বাচনী বিরাগ থেকে মুক্ত হয়ে নির্বাচনে অংশ নিতে বিএনপি’র প্রতি আহ্বান জানান।
বিএনপি প্রধান বেগম খালেদা জিয়ার চিকিৎসা সম্পর্কিত অপর এক অভিযোগের জবাবে তথ্যমন্ত্রী বলেন, তার চিকিৎসাকে কেন্দ্র করেই এখন দলটির রাজনীতি ঘুরপাক খাচ্ছে। মন্ত্রী বলেন, তিনি এখন বিশ্বমানের চিকিৎসাসেবা পাচ্ছেন। তিনি তার পছন্দনীয় পরিচারিকা পেয়েছেন। প্রতিদিন কারাগারে তার স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য একজন চিকিৎসক যান। তার জন্য একজন ফিজিওথেরাপিস্ট ও একজন নার্সও নিয়োগ দেয়া হয়েছে।
বাসস’র প্রধান সম্পাদক অনুষ্ঠানে বলেন, বঙ্গবন্ধুর আদর্শ এবং মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় অনুপ্রাণিত হয়ে সরকারের উন্নয়ন প্রচেষ্টায় সহায়তা করতে প্রত্যেকের এগিয়ে আসা উচিত।
আবুল কালাম আজাদ বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাঁর প্রজ্ঞা দিয়ে দেশের উন্নয়ন করছেন এবং চলমান এই উন্নয়ন প্রয়াস এগিয়ে নিতে আমাদের সবার উচিত তাঁকে ঐক্যবদ্ধভাবে সহযোগিতা করা। তিনি বলেন, ‘এ দেশ আমাদের। এখানে যুদ্ধাপরাধী ও মৌলবাদীদের সাথে কোন আপোষ নেই।’
আওয়ামী লীগ নেতা এডভোকেট বলরাম পোদ্দার, অভিনেতা শাকিল খান, অভিনেত্রী শাহনূর, শিল্পী এস ডি রুবেল অন্যান্যের মধ্যে অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করেন।

About editor

Leave a Reply

Your email address will not be published.

WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com