ব্রেকিং নিউজ

অসংক্রামক ব্যাধি প্রতিরোধে জনগণের মধ্যে সচেতনতা তৈরি করতে হবে : স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান বলেছেন, অসংক্রামক ব্যাধি প্রতিরোধে দেশের জনগণের মধ্যে সচেতনতা তৈরি করতে হবে।
তিনি বলেন, পারিবারিক পর্যায় থেকে অসংক্রামক রোগের প্রতিরোধে সচেতনতার শিক্ষা শুরু করতে হবে। আমাদের সচেতনতার মাধ্যমেই চলার পদ্ধতিতে সুশৃংখল জীবন যাপনের অভ্যাস করতে হবে। সচেতনতা ছাড়া অসংক্রামক ব্যাধি প্রতিরোধে সম্ভব নয়।
আজ বুধবার বিকেলে জাতীয় প্রেসক্লাবে আয়োজিত এক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মুরাদ হাসান এসব কথা বলেন। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ও ভোরের কাগজ এর যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত ‘এনসিডি চ্যালেঞ্জ হেলথ ইন অল পলিসি অল সোসাইটি অ্যাপ্রোচ’ শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়।
সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. এ এইচ এম এনায়েত হোসেন। তিনি বলেন, আমাদের দেশে অসংক্রামক রোগের কারণে মৃত্যুর হার প্রায় ৭০ ভাগ। বাংলাদেশের মানুষের মধ্যে কোলেস্টোরেলের বৃদ্ধির হার ২৮.৪ ভাগ, উচ্চ রক্তচাপ ২৬.২ ভাগ, ক্যান্সারে আক্রান্ত ১১ ভাগ, ক্রনিক অবস্ট্রাকটিভ পালমোনারি ডিজিজ ১০ ভাগ এবং ডায়াবেটিসে আক্রান্তের হার ৮.৪ ভাগ। যেসব কারণে অসংক্রামক রোগের ঝুঁকি বাড়ে তার মধ্যে তামাক, অ্যালকোহল, অস্বাস্থ্যকর খাদ্যাভ্যাস, বায়ু দূষণ এবং কায়িক শ্রমের অভাব উল্লেখযোগ্য।
ভোরের কাগজের সম্পাদক শ্যামল দত্তের সঞ্চালনায় সেমিনারে বক্তব্য রাখেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সাবেক মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. ফয়েজ, অসংক্রামক রোগ বিভাগের লাইন ডিরেক্টর ডা. নুর মোহাম্মদ, জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউটের পরিচালক অধ্যাপক ডা. আফজালুর রহমান, জাতীয় কিডনী ইনস্টিটিউটের পরিচালক অধ্যাপক ডা. নুরুল হুদা লেলিন প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

About editor

Leave a Reply

Your email address will not be published.

WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com