ব্রেকিং নিউজ

মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস বারবার বিকৃত হয়েছে : রেলপথ মন্ত্রী

রেলপথ মন্ত্রী মো. নূরুল ইসলাম সুজন বলেছেন, বাংলাদেশে মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস বারবার বিকৃত করা হয়েছে। এজন্যই তরুন প্রজন্মের কাছে মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস বেশি বলতে হয়।
তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশেই মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস বারবার ইতিহাসের কথা বলতে হয়। নতুনদের কাছে মুক্তিযুদ্ধের কথা বলতে হয়। কারণ বারবার ইতিহাস বিকৃত করা হয়েছে। প্রজন্মকে বিভ্রান্ত করেছে। যারা মুক্তিযুদ্ধে বিরোধীতা করেছে, তারাই বঙ্গবন্ধু হত্যার পর মুক্তিযুদ্ধকে বিতর্কিত করেছে। পৃথিবীর অন্য কোন দেশে মিমাংসিত ইতিহাস নিয়ে এত বিকৃতি হয়নি।’
রেলপথ মন্ত্রী আজ জাতীয় প্রেসক্লাবে বঙ্গবন্ধু একাডেমী আয়োজিত ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস উপলক্ষে এক আালোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতা করছিলেন।
রেলপথ মন্ত্রী বলেন, ’৭০-এর নির্বাচন ছিল স্বাধীনতার মাইলফলক। স্বাধীনতা অর্জনের পথে বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ এবং ১৭ এপ্রিল মুজিবনগর সরকার গঠন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ছিল। বাংলাদেশের প্রথম অস্থায়ী সরকার গঠন ছিল স্বাধীনতা অর্জনের প্রথম পদক্ষেপ।
রেলপথ মন্ত্রণালয় সম্পর্কে তিনি বলেন, এক সময় রেলওয়েকে ধংস করা হয়েছে। ১৯৯১ সালে গোল্ডেন হ্যান্ডশেকের মাধ্যমে ১০ হাজার কর্মী একদিনেই ছাটাই করা হয়েছে। বিএনপি সরকার রেলের কোন সংস্কার করেনি, কিন্তু আওয়ামী লীগ নেতুত্বাধীন সরকার ২০১১ সালে পৃথক রেলপথ মন্ত্রণালয় গঠন করে। এরপর পর্যায়ক্রমে কোচ, ইঞ্জিন বাড়ানো হচ্ছে।
মন্ত্রী বলেন, নতুন নতুন লাইন নির্মাণ করা হচ্ছে। সমন্বিত যোগাযোগ ব্যবস্থা গড়ে তোলার লক্ষ্যে রেলকে গুরুত্ব দেয়া হয়েছে। বঙ্গবন্ধু চেয়েছিলেন স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়তে। সম্মিলিত প্রচেষ্টায় বঙ্গবন্ধুর কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পিতার অসমাপ্ত কাজগুলো সম্পন্ন করার চেষ্টা করে যাচ্ছেন। রেলখাতকেও একটি উন্নত বিশ্বের পর্যায়ে নিয়ে যাওয়ার প্রচেষ্টাও অব্যাহত রয়েছে।
বঙ্গবন্ধু একাডেমীর সভাপতি মো. নাজমুল হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য মোজাফফর হোসেন পল্টু। আরো বক্তব্য রাখেন জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা সমন্বয় কমিটির মহাসচিব সফিকুল বাহার মজুমদার টিপু।

About editor

Leave a Reply

Your email address will not be published.

WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com